আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস উপলক্ষে মানবিক সাহায্য সংস্থার ওয়েবিনার

জাতিসংঘ ঘোষিত আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস উপলক্ষে অনলাইনে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে ‘মানবিক সাহায্য সংস্থা’। বৃহস্পতিবার আয়োজিত এ ওয়েবিনারের প্রতিপাদ্য ছিল-আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবসে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে মানবিক সাহায্য সংস্থার অবদান।

ওয়েবিনারে স্বাগত বক্তব্য ও আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবসে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে মানবিক সাহায্য সংস্থার অবদান সম্পর্কিত ধারণা ও সুপারিশপত্র উপস্থাপন করেন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মুনাওয়ার রেজা খান। সংস্থার দু’জন অগ্রসর ঋণী সদস্য এবং উদ্যোক্তা সুরাইয়া বেগম ও হাসানা হেনা বাংলাদেশের সামাজিক প্রেক্ষাপটে তাদের অর্থনৈতিক অগ্রগতির অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন।

ওয়েবিনারে অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক ইত্তেফাকের সিনিয়র সাংবাদিক ফরিদা ইয়াসমিন, মুসলিম এইড, ইউকে, বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর রাবেয়া সুলতানা ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক শারমিন্দ নীলোর্মি। অতিথিরা বৈশ্বিক ও বাংলাদেশ প্রেক্ষাপটে সুবিধাবঞ্চিত নারীদের অর্থনৈতিক অংশগ্রহণের স্বীকৃতি, উন্নয়ন ও অধিকার প্রতিষ্ঠার উপর গুরুত্বারোপ করে তাদের সুপারিশ প্রদান করেন। ওয়েবিনারে সমাপনী বক্তব্য এবং অংশগ্রহণকারীদের ধন্যবাদ জানান এমএসএস’র উপদেষ্টা তরিকুল গণি।

উল্লেখ্য, ‘মানবিক সাহায্য সংস্থা’ ১৯৭৪ সাল থেকে সুবিধাবঞ্চিত নারীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কাজ করে আসছে। ২০২০ সালের আগস্ট মাস পর্যন্ত গ্রামে ও শহরে মোট ১৫ লাখ ৮ হাজার ২৫৬ জন নারীকে মানবিক সাহায্য সংস্থার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচিতে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। যার মধ্যে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হয়ে কর্ম-সংস্থানের সুযোগ হয়েছে ১৩ লাখ ৬৭ হাজার ৬৫৬ জন নারীর।

  • SHARE